উচ্চতা কম? তাহলে এই ফ্যাশন টিপসগুলি মেনে চলতে ভুলো না।

উচ্চতা কম (Short Height) বলে মন খারাপ করার কোনও কারণ নেই। বরং বাকি অনেকের মতো তুমিও হয়ে উঠতো পারো ফ্যাশন কুইন।

উচ্চতা কম? তাহলে এই ফ্যাশন টিপসগুলি মেনে চলতে ভুলো না।
উচ্চতা কম? তাহলে এই ফ্যাশন টিপসগুলি মেনে চলতে ভুলো না।

শর্ট মেয়েদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাশন টিপস


"বিউটিফুল থিংস অফেন কাম ইন স্মল প্যাকেজ"। এই কথাটা নিশ্চই শুনে থাকবে! তাই উচ্চতা কম (Short Height) বলে মন খারাপ করার কোনও কারণ নেই। বরং বাকি অনেকের মতো তুমিও হয়ে উঠতো পারো ফ্যাশন কুইন। তবে তার জন্য কতগুলি টিপস মেনে চলতে হবে (Fashion Tips for Short Height Girls)। তাহলেই দেখবে কেল্লা ফতে!

কী কী নিয়ম মানলে তোমার লুকটাই বদলে যাবে, তাই ভাবছো নিশ্চয়? সে উত্তর পাবেন আমাদের আর্টিকেল সুচিপত্রেঃ

আর্টিকেল সুচিপত্রঃ


জুতার নিয়মকানুন (Shoes For Short Girls)

উচ্চতা কম? তাহলে এই ফ্যাশন টিপসগুলি মেনে চলতে ভুলো না।

হাইট যখন একটু কম, তখন হিল পরা ছাড়া কোনও উপায় নেই। তবে হিল জুতোর পাশাপাশি গোড়ালি পর্যন্ত যেব জুতো পাওয়া যায়, তা পরলেও কিন্তু মুশকিল আসান হবেই হবে! সেই সঙ্গে হাই হিল নস্টার বা বুট জুতোও চলতে পারে। ইচ্ছে হলে পরতে পারো স্পোর্টস শুও। তবে সম্ভব হলে নানান রঙের জুতো কেনার চেষ্টা করো, তাতে লুকের ক্ষেত্রে একটু বৈচিত্র আসবে বৈকি!

জুতার সমস্যা না হয় মিটলো, কিন্তু যাদের উচ্চতা একটু কম, তাদের কেমন ধরনের পোশাক পরতে হবে, সেটা তো এবার জানতে হবে! তাই তো বাকি প্রবন্ধটা না পড়লেই নয়!

জামা-কাপড়ের খুঁটিনাটি (Outfits For Short Girls)

জামা-কাপড়ের খুঁটিনাটি (Outfits For Short Girls)

শর্ট হাইট (short height) যাদের তাদের যে যে নিয়মগুলি মেনে জামা-কাপড় পরা উচিত, সেগুলি হল...

শার্ট ইন করে পরতে হবে:

শার্ট এবং টপ যখনই পরবে, সেটা গুঁজে নিতে ভুলো না যেন! কারণ বিশেষজ্ঞদের মতে স্কার্ট বা প্যান্টের সঙ্গে টপ যদি ইন করে পরা যায়, তাহলে একটা ভিজুয়াল ইলিউশন তৈরি হয়। অর্থাৎ দূর থেকে বেশ লম্বা মনে হয় তখন। ফলে তোমার হাইট যে একটু কম, সেদিকে দেখবে কারও নজর পড়বে না। এক্ষেত্রে আরেকটা নিয়মও মেনে চলতে পারো। কী নিয়ম? টপ গুঁজে পরার পাশাপাশি যদি "হাই ওয়েস্ট" প্যান্ট বা স্কার্ট পরা যায়, তাহলেও কিন্তু বেশ লাগবে (fashion tips)।

জিন্স নিচের থেকে একটু গুটিয়ে নিলেই কেল্লা ফতে:

এবার থেকে জিন্স বা প্যান্ট যখনই পরবে, একটা কথা মাথায় রাখবে, তা হল গোড়ালির কাছে প্যান্ট বা জিন্সটা কিছুটা গুটিয়ে নেবে, আর স্কিনি জিন্স বা প্যান্ট ছাড়া পড়বে না। তবে শেডেড জিন্স চলতে পারে বৈকি! আর এমন ড্রেসের সঙ্গে গোড়ালি পর্যন্ত বুট জুতো বা স্ট্রিপওয়ালা কোনও জুতো পরলে দেখবে দারুন স্মার্ট লাগবে। আর যদি ইচ্ছা করে, তাহলে মানানসই একটা বেল্টও পরতে পারো।

অ্যাসিমেট্রিক ড্রেস দারুন লাগবে:

এ আবার কেমন ড্রেস তাই ভাবছো নিশ্চয়? আসলে আজকাল বাজারে এমন কিছু স্কার্ট পাওয়া যাচ্ছে, যার তলাটা সমান নয়, বরং অসম। এই ধরনের স্কার্টকেই অ্যাসিমেট্রিক ড্রেস বলা হয়ে থাকে। অ্যাসিমেট্রিক স্কার্ট শর্ট হতে পারে, আবার হতে পারে লংও। তবে এমন ধরনের ড্রেস পরলে উচ্চতার দিকে যে কারও নজর যাবে না, তা হলফ করে বলা যেতেই পারে। আর যদি লং অ্যাসিমেট্রিক স্কার্টের সঙ্গে হাতে মোটা বালা এবং মানানসই ঝোলা দুল আর হার পরতে পারো, তাহলে তো কথাই নেই!

আজকাল অনলাইন এবং বেশ কিছু বুটিকেও ইন্দো-ওয়েস্টার্ন অ্যাসিমেট্রিক ড্রেস পাওয়া যাচ্ছে (fashion tips)। ইচ্ছা হলে ট্রাই করতে পারো। তবে এমন স্কার্ট পরার সময় অন্তর্বাসের দিকে নজর দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে। কারণ আন্ডার গার্মেন্টের ফিটিং যদি ঠিক না হয়, তাহলে কিন্তু খুব খারাপ লাগবে। তাই এই বিষয়টি মাথায় রাখা একান্ত প্রয়োজন। এক্ষেত্রে নিউট্রাল কালারের সিমলেস অথবা অফ শোল্ডার অন্তর্বাস পরা যেতে পারে।

স্কার্টের সঙ্গে বেল্ট মাস্ট:

শর্ট হাইট যাদের তাদের বেল্ট পরাটা জরুরি! কারণ শার্ট ইন করা অবস্থায় স্কার্ট বা প্যান্টের সঙ্গে বেল্ট পরলে কিন্তু বেশ মানাবে। সেই সঙ্গে দেখবে হাইটও আর কম লাগবে না। তবে এক্ষেত্রে একটা বিষয় মাথায় রাখা একান্ত প্রয়োজন, তা হল বেল্ট যেন মোটা না হয়। কারণ কম উচ্চতার মহিলারা মোটা বেল্ট পরলে শরীর দুটো ভাগে ভাগ হয়ে গেছে বলে মনে হয়, যা একেবারেই সুন্দর দেখতে লাগে না। তাই সরু বেল্ট, সঙ্গে ছোট একটা পার্স বা ব্যাগ, তাহলেই দেখবে কেল্লা ফতে! তবে ইচ্ছা হলে বেল্টে পরার পাশাপাশি মানানসই স্কার্ফও নিতে পারে। তাতে সৌন্দর্য আরও বাড়বে বৈকি!

গোড়ালির কাছে প্যান্ট যেন ভাঁজ খেয়ে না থাকে:

খেয়াল করে দেখবে অনেকেই এমন ধরনের প্যান্ট বা জিন্স পরে, যা গোড়ালির কাছে ভাঁজ খেয়ে থাকে। এবার থেকে ভুলেও এমন জিনস পরা চলবে না। পরা চলবে না লো ওয়েস্ট জিন্সও। কারণ গোড়ালির কাছে প্যান্ট যদি এমন ভাঁজ খেয়ে যায়, তাহলে আরও বেটে মনে হয়। উপরন্তু এমন স্টাইল মোটেও ফ্যাশনেবল নয়। তাই এবার থেকে জিন্স বা প্যান্টের লেন্থ যেন গোড়ালি না ছাড়ায়। কারণ যেমনটা আগেও আলোচনা করা হয়েছে যে কম উচ্চতার মহিলারা যদি গোড়ালি পর্যন্ত জিন্স গুটিয়ে নেয় বা কেটে নয়, তাহলে বেশি সুন্দর লাগে।

শার্টের উপর জ্যাকেট:

যাদের উচ্চতা কম (short height),তারা নিজেদের লুককে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে জিন্স, ইন করে শার্ট বা টপ, সঙ্গে জ্যাকেট পরলে কিন্তু বেশ দেখতে লাগবে! তবে সমস্যাটা হল আমাদের রাজ্যে বছরের বেশিরভাগ সময়ই যা গরম থাকে, তাতে জ্যাকেট পরার কথা ভাবাই যায় না। তাই শীতকালে এই নিয়মটি মেনে চলতে পারো। বিশেষত, শীতকালীন নানা পার্টিতে এমন ড্রেস করে গেলে যে আনেকের পক্ষেই তোমার থেকে নজর ফেরানো কঠিন হয়ে দাঁড়াবে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

লুস ফিট জামা-কাপড় পরা চলবে না:

লুজ টপ বা শর্ট নৈব নৈব চ! কারণ বিশেষজ্ঞদের মতে এমন ধরনের ড্রেস পরলে আরও শর্ট দেখায় (short height)। তাই যতটা সম্ভব স্কিন টাইট টপ আর জিন্স পরতে হবে। এমনকি স্কার্টও যেন হয় স্কিনি বা স্লিম ফিট। তবে ইচ্ছা হলে একটু লুজ পোশাক পরা যেতেই পারে। কিন্তু বেশি ঢিলেঢালা যেন না হয়!

উজ্জ্বল রঙ বেছে নিতে হবে:

কেমন ধরনের ড্রেস পরেছি, তার উপর যেমন আমাদের লুক অনেকাংশে নির্ভর করে থাকে, তেমনি জামা-কাপড়ের রংও কিন্তু এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়। তাই এবার থেকে একটু ডিপ কালারের ড্রেস পরার চেষ্টা করো। কারণ বিশেষজ্ঞদের মতে শর্ট হাইটের (short height) মহিলারা ডিপ এবং উজ্জ্বল রঙের ড্রেস পরলে উচ্চতার দিকে নজর যাওয়ার আর কোনও আশঙ্কাই থাকে না। শুধু তাই নয়, ডিপ কালার একটা ইলিউশন তৈরি করে, যে কারণে তোমার উচ্চাত যে কম, তা মনেই হয় না। ডিপ কালারের পাশাপাশি কালো রং যদি পছন্দের হয়, তাহলে এই রং ঘেঁষা জাম-কাপড়ও কিনতে পারো। কারণ কালো ড্রেস যে কোনও দিনই সুপার হিট!

শর্ট:

হট প্যান্ট বা শর্ট যেমন একদিকে তোমার উপস্থিতিকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলবে, তেমনি পায়ের অনেকটা অংশ দেখা যাওয়ার কারণে তোমার হাইট যে শর্ট, তা বোঝাই যাবে না। তাই এই গরমকালে ডার্ক কালারের শর্ট বা হট প্যান্টের সঙ্গে স্লিভলেস সুতির টপ বা শার্ট "টাক ইন" করে পরলে কিন্তু মন্দ লাগবে না। আর এমন ড্রেসের সঙ্গে পরতে হবে হাই হিল, বুট অথবা অ্যাঙ্কেল লেন্থ যে কোনও জুতো। ইচ্ছে হলে পরতে পারো স্পোর্টস শুও।

হেয়ার স্টাইলের দিকেও নজর ফেরাতে হবে (Hairstyle For Short Girls)

হেয়ার স্টাইলের দিকেও নজর ফেরাতে হবে (Hairstyle For Short Girls)

আমাদের কতটা সুন্দর দেখতে লাগবে, তা ড্রেসের উপর যেমন নির্ভর করে, তেমনি হেয়ার স্টাইলও কিন্তু খুব গুরুত্বপূর্ণ। তাই এদিকে নজর রাখারও প্রয়োজন রয়েছে। তাই যদি চাও তোমার হাইটের দিকে কারও নজর না যাক, তাহলে শর্ট হেয়ার রাখার চেষ্টা করো। আর যদি চুল কাটতে মন না চায় তাহলে পনিটেল বা টপ-বান করে রাখলেও কিন্তু মন্দ লাগবে না। আসলে ঘাড়ের যতটা বেশি অংশ দেখা যাবে, ততই কিন্তু লম্বা দেখাবে। তাই এমন পরামর্শ। শুধু তাই নয়, ইচ্ছা হলে চুল মিডিয়াম লেন্থও রাখতে পারো। তাতেও বেশ লম্বা দেখাবে বৈকি! তবে এইসব নিয়মগুলি ছাড়াও আরও কতগুলি বিষয় মাথায় রাখা একান্ত প্রয়োজন, তা হল- তোমার "বডি টাইপ" কেমন, সে সম্পর্কে বুঝে নিয়ে সেই মতো হেয়ার স্টাইল (hairstyle for short height girl) করতে হবে। সেই সঙ্গে খেয়াল রাখতে হবে খুব ছোট করে যেমন চুল কাটা যাবে না, তেমনি কোমর পর্যন্ত চুল রাখলেও কিন্তু শর্ট হাইটের মেয়েদের ভালো লাগে না। 

পথ দেখাতে পারে আলিয়া এবং শ্রদ্ধা

পথ দেখাতে পারে আলিয়া এবং শ্রদ্ধা ও

মানে! আরে একবার এই দুই জনপ্রিয় অভিনেত্রীর ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে ঢুঁ মারলেই বুঝতে পারবে হাইটের সঙ্গে কীভাবে এঁরা মনানসই ড্রেস করে থাকেন। আলিয়ার কথাই ধরো না। ওঁর উচ্চতা কিন্তু বেশি নয়। কিন্তু ফ্যাশন সেন্সের দিক থেকে আলিয়ার সঙ্গে টেক্কা দেওয়া কিন্তু বেশ কঠিন। তাই ইচ্ছা হলে তুমিও আলিয়ার পদাঙ্ক অনুসরণ করতে পারো। আর পরতে পারো এই অভিনেত্রীর মতই স্কিনি ফিট স্কার্টের সঙ্গে হাই হিল বুট অথবা পালাজো, তেমনি ইচ্ছা হলে লং স্কার্টও কিন্তু মন্দ লাগবে না। তবে খেয়াল করে আলিয়ার মতো ডিপ কালারের ড্রেস পছন্দ করতে ভুলো না যেন!

ফ্যাশনের দিক থেকে পিছিয়ে নেই শ্রদ্ধা কাপুরও। কখনও জাম্প স্যুটে, তো কখনও চুরিদারে অপূর্ব দেখতে লাগে তাঁকে। শুধু কী তাই, এই গুণী অভিনেত্রীকে দেখে কখনই মনেই হয় না তাঁর কাছে হাইটটা কখনও গুরুত্ব পেয়েছে বলে!

আরো দেখুনঃ শর্ট মেয়েদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাশন টিপস - ভিডিও সহ

এত দূর পড়ার পরেও কিছু প্রশ্ন নিশ্চয় এখনও আছে? (FAQs)

এত দূর পড়ার পরেও কিছু প্রশ্ন নিশ্চয় এখনও আছে? (FAQs)

প্রশ্নঃ হাই হিল পরাটা কি খুব জরুরি?
উত্তরঃ না তেমন নয়। তবে শর্ট হাইটের মেয়েরা যদি ড্রেসের সঙ্গে তাল মিলিয়ে হাই হিল পরতে পারে, তাহলে কিন্তু মন্দ লাগবে না! তাই সবশেষে সিদ্ধান্ত নেবে তুমি। 

প্রশ্নঃ শর্ট হাইটের মেয়েদের কেমন ধরনের ইন্দো-ওয়েস্টার্ন ড্রেস মানাবে?
উত্তরঃ ক্রপ টপের সঙ্গে স্কার্ট যেমন দারুন লাগবে, তেমনি ক্রপ টপের সঙ্গে ধুতি প্যান্ট অথবা পালাজও চলতে পারে। আবার ইচ্ছা হলে শর্ট টপের সঙ্গে পালাজও পরতে পারো, তাতেও কিন্তু মন্দ লাগবে না!

প্রশ্নঃ শর্ট হাইটের মেয়েদের চুরিদার পরলে কি ভালো দেখতে লাগে?
উত্তরঃ অবশ্যই! তবে চুরিদারের পাশাপাশি ইচ্ছা হলে শাড়িও পরতে পারো। কম হাইটের মেয়েদের কিন্তু শাড়িতে খুব সুন্দর দেখতে লাগে। 

প্রশ্নঃ কেমন ধরনের হ্যান্ড ব্যাগ নিলে ভালো হয়?
উত্তরঃ এক্ষেত্রে প্রথমেই যে জিনিসটি মাথায় রাখতে হবে, তা হল খুব বড় মাপের ব্যাগ নেওয়া চলবে না। তাতে দেখতে খারাপ লাগবে। বরং ছোট বা মাঝারি মাপের হ্যান্ড ব্যাগ নেওয়া চলতে পারে। এক্ষেত্রে আরেকটা বিষয় মাথায় রাখতে হবে, তা হল, হ্যান্ড ব্যাগের রং যেন ড্রেসের সঙ্গে মানানসই হয়। না হলে পুরো পরিশ্রমটাই কিন্তু জলে যাবে!

ছবির কৃতজ্ঞতা স্বীকার: ইনস্টাগ্রাম